বিশেষ খবর

করোনা ভাইরাসের কারণে প্রাথমিক-মাধ্যমিকের ২৮ ভাগ শিক্ষার্থী ঝুঁকিতে

ক্যাম্পাস ডেস্ক শিক্ষা সংবাদ

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও দেশের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৮ শতাংশ শিক্ষার্থী বাইরে বের হচ্ছে। কোনো স্বাস্থ্যবিধি মানছে না ১০ শতাংশ শিক্ষার্থী। ফলে করোনার ঝুঁকিতে রয়েছে প্রাথমিক-মাধ্যমিকের ২৮ শতাংশ শিক্ষার্থী।

ব্র্যাকের একটি জরিপ প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে। সম্প্রতি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনের উপস্থিতিতে এ প্রতিবেদন তুলে ধরার কথা রয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সারাদেশের প্রত্যেকটি বিভাগের দুটি করে জেলা অর্থাৎ ১৬টি জেলা বাছাই করে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৯৩৮ জন শিক্ষার্থীর ওপর এই জরিপ চালানো হয়।

জরিপের মাঠপর্যায়ের তথ্য বলছে যে, ১৬ শতাংশ শিক্ষার্থী (৩১৮ জন) মহামারি নিয়ে আতঙ্ক প্রকাশ করেছে।

প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত মোট ৩১ মিলিয়ন শিক্ষার্থীর থেকে যদি আতঙ্কিত শিক্ষার্থীর মোট সংখ্যা বা সমীকরণ বের করা হয় তাহলে সংখ্যাটি বেশ বড়, যা খুবই উদ্বেগজনক। সংসদ বাংলাদেশ টিভির প্রচারিত ক্লাসে ৫৬ শতাংশ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করতে পারছে না বলেও গবেষণায় উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়, করোনা ভাইরাসে পড়ালেখায় অনীহা জন্মেছে ১৩ শতাংশ শিক্ষার্থীর। আবার ১৪ শতাংশ শিক্ষার্থী পড়াশোনা না করে অলসভাবে সময় কাটাচ্ছে এবং ৪৪ শতাংশ শিক্ষার্থী প্রতিষ্ঠান থেকে কোনো প্রকার নির্দেশনা পাচ্ছে না।

অন্যদিকে, করোনা ভাইরাসের কারণে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা সহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বর্তমানে বন্ধ। ছাত্র-ছাত্রীরা নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করছে। এ অবস্থায় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া যাতে বাধাগ্রস্ত না হয় সেজন্য সরকার ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় সংসদ টিভি প্রোগ্রামের মাধ্যমে ভার্চুয়াল ক্লাস চালিয়ে যাচ্ছেন। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে একটি রুটিনও দেয়া হয়েছে।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ