Planets Sun Sun Sun Sun

ক্যাম্পাস স্টাডি সেন্টার নির্মাণ প্রকল্প

modelবহুমুখী সম্ভাবনার এই দেশ, আমাদের বাংলাদেশ। প্রিয় এ মাতৃভূমিকে আধুনিক বিশ্বের উন্নয়নের ধারায় আনতে প্রয়োজন বলিষ্ঠ ব্যক্তিত্বের রাষ্ট্রনায়কোচিত নেতৃত্ব -যার মূল চালিকাশক্তি হবে সৎ, দেশপ্রেমী, দক্ষ, আত্মবিশ্বাসী, কর্মঠ ও ইতিবাচক মননের অধিকারী ছাত্র-যুব সমাজ। আর এরূপ যুবশক্তি গড়ে তুলতে তথা আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে দীর্ঘদিন থেকে কাজ করছে ক্যাম্পাস।

জাতি জাগরণ ও দেশ উন্নয়নের এরূপ বৃহৎ কর্মযজ্ঞ প্রসারে উত্তরায় (এয়ারপোর্ট সংলগ্ন) ‘ক্যাম্পাস স্টাডি সেন্টার’ ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এ সেন্টারটি হবে জাতির প্রাণ-প্রবাহের এক অনন্য প্রতিষ্ঠান; যেখানে আত্মবিশ্বাসী, প্রোএকটিভ ও পজিটিভ দৃষ্টিভঙ্গির দক্ষ জনগোষ্ঠী গড়ে তুলতে নিবিড় অধ্যয়ন এবং বহুমুখী প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা থাকবে। আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞানের সাথে সমঞ্জস রেখে সমসাময়িক বিষয়াবলীর ওপর গুরুত্ব দিয়ে গতিশীল উন্নয়নের লক্ষ্যে পরিচালিত হবে এ স্টাডি সেন্টারের কর্মযজ্ঞ।

স্টাডি সেন্টার ভবন নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে আয়োজিত এক সুধীসমাবেশে গঠিত হয়েছে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি। কমিটির চেয়ারম্যান এমেরিটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান, ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. শফিক আহমেদ সিদ্দিক ও ঢাকা ক্লাবের প্রেসিডেন্ট জনাব খায়রুল মজিদ মাহমুদ। ট্রেজারার হিসেবে রয়েছেন জাতীয় অধ্যাপক ডাঃ শাহলা খাতুন। কমিটিতে আরও আছেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদসহ বিভিন্ন অঙ্গনের প্রথিতযশা ব্যক্তিত্বগণ।

এ প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রয়োজন দেশপ্রেমী-সমাজহিতৈষীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ; যেখানে আপনিও সাধ্যমতো সহযোগিতা করতে পারেন। দান-অনুদানের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির জন্য ‘ক্যাম্পাস ভবন নির্মাণ তহবিল’ নামে অগ্রণী ব্যাংক, জাতীয় প্রেসক্লাব শাখায় একাউন্ট রয়েছে (চলতি হিসাব নং ৩৯৩১৬৩৩)। ক্যাম্পাস’র সভাপতি (প্রফেসর এমেরিটাস ড. আনিসুজ্জামান)/কোষাধ্যক্ষ এবং মহাসচিব এর যৌথ স্বাক্ষরে উক্ত হিসাব পরিচালিত এবং নির্বাহী কমিটি কর্তৃক নিয়মিত নীরিক্ষিত।

✔ স্টাডি সেন্টারের ভবন নির্মাণে ৫০ হাজার থেকে ৪ লক্ষ টাকা সহযোগিতা করলে দাতার নাম ভবনের এন্ট্রেন্স বোর্ডে গুরুত্ব সহকারে স্থান পাবে।
✔ ৫০ হাজার টাকার কম অংকের অর্থ দিয়ে সহযোগিতায় এগিয়ে আসা মহতী মানুষের ভালোবাসার কথাও ক্যাম্পাস পত্রিকায় ছাপিয়ে কৃতজ্ঞতা জানানোর ব্যবস্থা রয়েছে।
✔ সহযোগিতার পরিমাণ ন্যূনতম ৫ লক্ষ টাকা হলে তাঁর নাম ভবনের প্রবেশদ্বারে মার্বেল পাথরে চিরস্মরণীয় করে রাখা হবে।
✔ প্রকল্পের ১ কাঠা জমির মূল্য বাবদ ২২ লক্ষ টাকা নিজ থেকে দান করলে কিংবা সার্কেল থেকে সংগ্রহ করে দিলে ভবনের ১টি অডিটোরিয়াম, ৬টি সেমিনার ও রাউন্ড টেবিল রুম, ১০টি স্টাডি ও ট্রেনিং হল এবং ২টি লাইব্রেরির মধ্যে যেকোনো ১টির নামকরণ তাঁর নামে করা হবে। এরূপ বড় অংকের অনুদান প্রদানকারী কিংবা সংগ্রহকারীর প্রতি আজীবন সম্মাননা হিসেবে নির্মিতব্য ভবনে তাঁদের জীবন ও কর্মের আর্কাইভ প্রদর্শন ও সংরক্ষণের ব্যবস্থা থাকবে; আরও থাকবে তাঁদের চাহিদানুযায়ী পৃথক অফিস রুম।

এরূপ দানশীল ব্যক্তিত্বগণ ক্যাম্পাস’র শীর্ষ সুহৃদ ও সম্মানীয় পৃষ্ঠপোষক এর মর্যাদা পাবেন এবং প্রাতিষ্ঠানিক সকল সুযোগ-সুবিধায় অগ্রগণ্য হবেন। তাছাড়া ক্যাম্পাস’র কর্মসূচি গ্রহণ ও নীতি প্রণয়নে তাঁদের মতামত সাদরে গৃহীত হবে।

উক্ত যেকোনো সহযোগিতা কেবল অগ্রণী ব্যাংক, জাতীয় প্রেস ক্লাব শাখা, চলতি হিসাব নং ৩৯৩১৬৩৩ এ কিংবা ‘ক্যাম্পাস ভবন নির্মাণ তহবিল’ এর নামে ক্রস চেকে প্রেরণের অনুরোধ রইল।

ছাত্র-যুব ও শিক্ষা উন্নয়নের মাধ্যমে সমাজ জাগরণ এবং সৃজনশীল, প্রতিভাবান ও কর্মযোগী জাতি গড়ে তুলতে উক্ত ‘স্টাডি সেন্টার’ নির্মাণে আপনার সহৃদয় সহযোগিতাপূর্ণ অংশগ্রহণ সর্বান্তকরণে কামনা করছি।