Planets Sun Sun Sun Sun

ক্যাম্পাস’র কার্যক্রম সম্পর্কে জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্বগণ যা বলেন

ক্যাম্পাস’র ফেস্টুনে চিন্তার দীনতা দূর করার আহবান দেখে আমি মুগ্ধ। আমাদের চিন্তার দীনতা দূর করতে হবে, তবেই আলোকিত মানুষের সমন্বয়ে আলোকিত জাতি গঠন করা সম্ভব। (মার্চ ২০০৯)
-মুহাম্মদ (এ) রুমী আলী, ব্র্যাক ব্যাংক’র চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর

ক্যাম্পাস ছাত্র-যুবকদের স্বশিক্ষিত করছে, সুশিক্ষিত করছে, কর্মের হাত শক্ত করছে; তাদেরকে আত্মনির্ভর হবার প্রেরণা দিচ্ছে। যে স্বপ্ন না দেখলে এগুনো যায় না, ক্যম্পাস ছাত্র-যুবকদেরকে সে স্বপ্নই দেখাচ্ছে। (অক্টোবর ২০১০)
-প্রফেসর এ এন এম এ জাহের, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ এর চেয়ারম্যান

ক্যাম্পাস প্রতিষ্ঠানের ন্যায় এত ব্যাপক ও বিস্তৃত কর্মসূচি একসাথে দেখিনি। একটি কেন্দ্র থেকে এতগুলো জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ এজেন্ডা বাস্তবায়নের প্রয়াস নেয়া ক্যাম্পাস ছাড়া হয়ত কারো পক্ষে সম্ভব হতো না। দেশ পুনর্গঠন ও জাতির উন্নয়নের সকল কর্মসূচি একযোগে পরিচালনা করছে ক্যাম্পাস। ঢাকা শহরের বড় বড় বিল্ডিং বা সাজানো গোছানো অনেক প্রতিষ্ঠানের চেয়ে ক্যাম্পাস’র এই ছোট্ট পরিসর তাই আমার নিকট অনেক প্রিয়। উদ্দেশ্যের সততা দিয়ে ক্যাম্পাস প্রমাণ করেছে তার গ্রহণযোগ্যতা। (সেপ্টেম্বর ২০১১)
-মোহাম্মদ আবদুল মান্নান, গ্রন্থকার এবং ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক

ক্যাম্পাস’র পরিবেশ ও শিক্ষা এমনই যে, এখানে এসে অকর্মণ্য ও অবহেলিত ছাত্র-যুবকরাও দক্ষ-পরিপূর্ণ মানুষ হয়ে ওঠে। (জুন ২০১০)
-কে এম আসাদুজ্জামান, সোস্যাল ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক এর এমডি

যা কিছু ভালো, তা ক্যাম্পাস’র আলো। ক্যাম্পাস তার সব কর্মসূচি সততা ও নিয়মের মধ্যে থেকেই করেছে; এজন্য তার অগ্রযাত্রা নিখুঁত, সাফল্য চমকপ্রদ। (নভেম্বর ২০১২)
-আজম জে চৌধুরী, প্রাইম ব্যাংক লিঃ এর চেয়ারম্যান এবং ইস্টকোস্ট গ্রুপ এর ফাউন্ডার চেয়ারম্যান

ক্যাম্পাস পত্রিকা আলোকিত জাতি গঠনের কঠিন সংগ্রামে লিপ্ত রয়েছে। সামাজিক শিক্ষাকে এ প্রতিষ্ঠান গ্রামে-গঞ্জে নিয়ে যাচ্ছে, মফস্বলেও চালু করেছে ফ্রি কম্পিউটার ট্রেনিং, যা অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক। সমাজের প্রতি কমিটমেন্ট নিয়ে ক্যাম্পাস’র মতো সৎ ও দেশপ্রেমীদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। (আগস্ট ২০০৯)
-ড. ওয়ালী তসর উদ্দিন জেপি, স্কটল্যান্ডে বাংলাদেশের অনারারী কনসাল জেনারেল এবং ইবিএফ’র প্রেসিডেন্ট

ক্যাম্পাস একটি ব্যতিক্রমধর্মী প্রতিষ্ঠান। ক্যাম্পাস পরিচালিত বিভিন্ন কর্মকা- সমাজ উন্নয়নে অনবদ্য ভূমিকা রাখছে। ক্যাম্পাস পত্রিকা শিক্ষা ও শিক্ষাঙ্গন সংক্রান্ত নানা তথ্য ও সংবাদ পরিবেশন করে দেশের ছাত্র-যুবক ও শিক্ষাসংশ্লিষ্ট সকলের প্রভূত উপকার সাধন করছে। (ফেব্রুয়ারি ২০০৯) ক্যাম্পাস আমাদেরই প্রতিষ্ঠান, জন উন্নয়নের ব্যতিক্রমী প্ল্যাটফরম। দেশকে আলোকিত জাতি না দিয়ে ক্যাম্পাস’র অভিযান থামতে পারে না। (এপ্রিল ২০১১)
-নাসির এ চৌধুরী, গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির ফাউন্ডার এবং বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান

সমাজ সচেতনতায় ও সমাজকল্যাণে ক্যাম্পাস যেভাবে কাজ করে যাচ্ছে, তা বিশেষ প্রশংসার দাবিদার। জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ও দারিদ্র্যমুক্ত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ নির্মাণে ক্যাম্পাস’র বিভিন্ন কার্যক্রমে আমি আনন্দিত ও অভিভূত। বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দিয়ে ক্যাম্পাস দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে অতুলনীয় অবদান রাখছে। (মার্চ ২০০৯)
-নিজাম উদ্দিন আহমদ, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশনের ভাইস-চেয়ারম্যান

ক্যাম্পাস’র কার্যক্রম অত্যন্ত ব্যতিক্রম। নানা স্থানে ক্যাম্পাস’র যে স্টিকার দেখা যায়, সেসব স্টিকারের বক্তব্য মানব উন্নয়নে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। (অক্টোবর ২০০৮)
-ড. এজাজ আল মামুন, কৃষি বিজ্ঞানী এবং অস্ট্রেলীয় সরকারের পলিসি কর্মকর্তা

ক্যাম্পাস গর্ব করার মতো একটি প্রতিষ্ঠান। দেশ ও জাতির উন্নয়নে ব্যতিক্রমী প্রচেষ্টায় নিবেদিত ক্যাম্পাস’র বিভিন্ন চিত্তাকর্ষক কার্যক্রম রয়েছে, যা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। (আগষ্ট ২০০৯)
-সাহাব সাত্তার, জিএমজি এয়ারলাইন্স এর ফাউন্ডার এমডি

< Prev12345678910111213Next