বিশেষ খবর

যেভাবে মনোযোগ বাড়ে

ক্যাম্পাস ডেস্ক টিপস
img

কমবেশি সব বয়সের মানুষের যে সমস্যা হয়ে থাকে আমরা কোনো কাজ শুরু তো করি কিন্তু আমাদের তাতে মনোযোগ থাকে না বা কিছুসময় পার করার পর আমরা আর মনোযোগ ধরে রাখতে পারি না। যার ফলে শুধু কর্মদক্ষতাই কমে যায় না, এর সঙ্গে কাজের মান, কাজ করার ইচ্ছা আর আগ্রহ ধীরে ধীরে কমতে থাকে। কিন্তু খুব সহজেই আমরা যে কোনো কাজের প্রতি নিজেদের মনোযোগ তৈরি করতে পারি। নিচের এই সাতটি বিষয় আপনাকে আপনার দৈনন্দিন কাজের প্রতি অনেক বেশি মনোযোগী করে তুলতে পারে-
কিছু ব্যায়াম করুন
নিয়মিত শারীরিক ব্যায়াম আপনার মনোযোগ এবং ফোকাসকে অনেক বেশি উন্নত করতে পারে। এমন কি কাজের ফাঁকে এককাপ কফি বা চা থেকেও নিয়মিত শারীরিক ব্যায়াম আপনাকে অনেক বেশি মনোযোগী করে তুলতে পারে যে কোনো কাজে। আর কে না চায় ফিট থাকতে?
অধিক পরিমাণ তরল পান করুন
২০১২ সালের জার্নাল অব নিউট্রিশনের একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে হালকা ডিহাইড্রেশন- যা এতই সামান্য যে আপনি হয়ত বুঝবেনই না যে আপনি তৃষ্ণার্ত তাও আপনাকে অমনোযোগী করে তুলতে পারে। তো সারাদিনে বেশি পরিমাণ তরল পান করুন যা আপাতত দৃষ্টিতে কোনো কাজের মনে না হলেও আপনাকে মনোযোগী করে তুলতে সাহায্য করবে।
তাড়াহুড়ো করবেন না
যে কোনো কাজ ধীরে-সুস্থে শুরু করেন। অনেক কাজ, কি হবে, কখন হবে, কীভাবে করব, শেষ হবে কিনা তা না ভেবে ঠা-া মাথায় আগে শুরু করেন। দরকার হলে কাজকে ভাগ করে নিন। মনোযোগ ধরে রাখার একটি উপায় হলো শুরুতেই আপনি সহজ কাজ দিয়ে শুরু করেন। আস্তে আস্তে দেখবেন আপনি লক্ষ্যের খুব কাছে।
কি কি করতে হবে তা ভাগ করে নিন
পাহাড় পরিমাণ কাজ জমা হয়ে আছে তা ভেবেই যদি কাজ শুরু করেন কখনই তা কাজের মনোযোগ বৃদ্ধি করবে না, বরং তা আপনার কাজের প্রতি অনেক বেশি অনীহা তৈরি করবে। তো কাজ শুরু করার আগে ভেবে নিন কোনটির গুরুত্ব বেশি। তা ছোট ছোট ভাগে ভাগ করে নিন এবং সে অনুযায়ী কাজ শুরু করে দিন। দেখবেন কাজের প্রতি অনেক বেশি মনোযোগ বৃদ্ধি পাচ্ছে।
বিরতি দিন
কাজে মনোযোগ ধরে রাখার অন্য একটি উপায় হলো কাজের ফাঁকে ফাঁকে বিরতি নেয়া। টানা ১ ঘণ্টা কাজ করার থেকে ৪৫ মিনিট কাজ করে ১৫ মিনিটের ব্রেক নিয়ে নিন। তা আপনার পরবর্তী কাজকে আরো বেশি মনোযোগসহকারে এবং দ্রুত করতে সাহায্য করবে।
একসময়ে একটি কাজই করেন
মনে রাখতে হবে আমরা মানুষ, কম্পিউটার না। মাল্টি টাস্ক বা এক সময়ে একাধিক কাজ একটি কম্পিউটারের জন্য যতটা সহজ আপনার আমার জন্য তা কিন্তু না। তো এক সময়ে একটি কাজই করুন এবং অন্যদিকে না অন্য কাজ নিয়ে না ভাবুন। এতে আপনার সেই কাজের প্রতি ফোকাস অনেক বৃদ্ধি করবে।
সামাজিক গণমাধ্যম
কাজ করার সময় বিভিন্ন সামাজিক গণমাধ্যম যেমন ফেসবুক, ভাইবার, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম ইত্যাদি থেকে নিজেকে দূরে রাখুন। কে মেসেজ দিল, কোনো নোটিফিকেশন চেক করা বাকি রয়ে গেল কিনা তা যদি কাজ করার সময় মনে করেন তাহলে স্বাভাবিকভাবেই তা আপনার মনোযোগ কমিয়ে দেবে। তো চেষ্টা করবেন কাজের সময় এগুলো যেন সম্পূর্ণ বন্ধ রাখতে পারেন। তো দেরি না করে আজই অনুশীলন করে দেখুন। নিজের সময়কে কাজে লাগান।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ