বিশেষ খবর

কফির গুণাগুণ

ক্যাম্পাস ডেস্ক স্বাস্থ্য
img

বাংলা নামঃ কফি
ইংরেজী নামঃ Coffee
বৈজ্ঞানিক নামঃ Coffen canephora/ Coffea arabica
পরিবারঃ Rubiacceae

কফি হচ্ছে ধুসর বর্ণের এক ধরনের পানীয় যা তৈরি হয় কফি বীজ থেকে। পৃথিবীতে প্রায় ৭০ টি রাষ্ট্রে কফি চাষ হয়ে থাকে। কফি গাছ ১৫ মিটার লম্বা, পাতা গাঢ় সবুজ এবং ৪-৬ ইঞ্চি লম্বা হয়। পাতা ২.৪ ইঞ্চি চওড়া হয়ে থাকে। ফুল ডিম্বাকৃতি হয়ে থাকে। পৃথিবীতে ৯০০ প্রজাতির কফি গাছ আছে। প্রায় ২০০ কোটি মানুষ পানীয় হিসেবে কফি খেয়ে থাকে।
কার্যকর জৈব রাসায়নিক উপাদান
ক্যাফেইন, অ্যালকালয়েডস, অ্যালবুমিনয়েডস ৩-০-ঈধভভবড়ষয়ঁরহরপ এসিড, ৫-০-ক্যাফোলনিক এসিড, ৪-০- ক্যাফলনিক এডিস, ৩, ৫-০ ডিক্যাফেলনিক এডিস, ডায়াট্রিপেনস।
ব্যবহার
ডায়াবেটিস প্রতিরোধে ২০০৯ সালের এক গবেষণায় জানা যায় যারা নিয়মিত কফি পান করেন তাদের ডায়াবেটিস হবার পরিমাণ ৫-১০% কম হয়। যারা নিয়মিত ২ কাপ কফি পাণ করেন তাদের টাইপ ২ ডায়াবেটিস কম হয়। গবেষণায় আরও দেখা যায় কফি আয়রন শোষণের হার কমায় এবং টাইপ-২ ডায়াবেটিস হওয়ার ঝুঁকি কমায়।
ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়
গবেষণায় জানা যায়, যারা নিয়মিত ৫ কাপ কফি পান করেন তাদের প্রোস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে। আরেক গবেষণায় জানা যায়, যেসব মহিলা দিনে ৩-৪ কাপ কফি পান করেন তাদের ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে। একটি কেস কন্ট্রোল স্ট্যাডিতে দেখা যায়, যারা নিয়মিত তিন কাপ করে কফি পান করেন তাদের মুখ ও গলার ক্যান্সার দূর করে। আর এক গবেষণায় দেখা যায়, যারা নিয়মিত ১ কাপ কফি পান করেন তাদের লিভার ক্যান্সার হবার সম্ভাবনা ৪২% কম থাকে।
হৃদরোগ দূর করে
সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে নিয়মিত কফি পান করলে উচ্চ রক্তচাপ কমে যায়। ফলে উচ্চ রক্তচাপজনিত হৃদরোগ দূর হবে। গবেষণায় আরও দেখা গেছে, কফি খউখ কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমায় এবং রক্তনালীতে পাথর হওয়া থেকে রক্ষা করে।
পারকিনসন্স এবং আলঝেইমার্স রোগে
পারকিনসন্স এবং আলঝেইমার্স রোগ প্রতিরোধে খুবই কার্যকর। ২১০০০ লোকের উপর গবেষণা করে দেখা যায়, আলঝেইমার্স রোগ প্রতিরোধ খুবই কার্যকর।
লিভার সুরক্ষায়
সম্প্রতি ১,২০,০০০ লোকের উপর গবেষণা করে দেখা গেছে প্রতিদিন ৪ কাপ করে কফি পান করলে লিভার সিরোসিস দূর হয়।
স্নায়ু উদ্দীপনায়
কফিতে বিদ্যমান ক্যাফেইন স্নায়ু উদ্দীপনা তৈরি করে।
গাউট
গাউট সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত কফি পান করলে রক্তে ইউরিক এসিড জমতে পারবে না। ফলে গাউট প্রতিরোধে কফি কার্যকর ভূমিকা রাখে।
সতর্কতা
অতিরিক্ত কফি পান করলে পাকস্থলির আলসারসহ নানাবিধ শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।
-লেখকঃ বিশিষ্ট হারবাল গবেষক ও চিকিৎসক বিএইচএমএস (ঢা বি), ডি ফিল (ভারত) নিউরো (চীন)


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ