বিশেষ খবর

এশিয়ার শ্রেষ্ঠ সেন্ট্রাল ব্যাংক গভর্নর ড. আতিউর রহমান

ক্যাম্পাস ডেস্ক সংবাদ
img

এশিয়ার শ্রেষ্ঠ কেন্দ্রীয় ব্যাংক গভর্নর নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান। ১০ অক্টোবর পেরুর রাজধানী লিমায় বিশ্বব্যাংক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) বৈঠক শেষে এক সেমিনারে শ্রেষ্ঠ গভর্নর হিসেবে আতিউর রহমানের নাম ঘোষণা করে লন্ডনভিত্তিক আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক সংবাদমাধ্যম ‘ইউরোমানি এমার্জিং মার্কেটস’।
দেশের সামষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে অসামান্য অবদান রাখায় ড. আতিউরকে ‘শ্রেষ্ঠ কেন্দ্রীয় ব্যাংক গভর্নর ২০১৫’ নির্বাচিত করা হয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর সচিবালয়ের মহাব্যবস্থাপক এ এফ এম আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ১১ অক্টোবর পেরুর রাজধানী লিমার শেরাটন হোটেলে আনুষ্ঠানিকভাবে ড. আতিউরকে এই সম্মাননা দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফের বার্ষিক সভায় অংশ নেয়া প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিক্রিয়ায় ড. আতিউর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া দায়িত্ব রূপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে তিনি কাজ করেছেন। ওই দায়িত্ব পালন করার কারণেই তিনি এ পুরস্কার পেয়েছেন। তাই তিনি এ পুরস্কার প্রধানমন্ত্রীকে উৎসর্গ করছেন। গত বছর এই সম্মাননা পেয়েছিলেন রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার গভর্নর রঘুরাম রাজন। তার আগের বছর এই সম্মাননা পান চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর ঝুও জিআওচুয়ান।
এমার্জিং মার্কেটস অর্থনৈতিক সংবাদ, বিশ্লেষণ ও অর্থনীতিক নীতিমালার ওপর মন্তব্যের একটি স্বতন্ত্র উৎস। এটা বিশ্ব অর্থনীতি, বিশ্ব অর্থনৈতিক বাজার ও উদীয়মান অর্থনীতির দিকে বিশেষ দৃষ্টি দিয়ে থাকে। এটা বিশ্বব্যাপী আর্থিক তথ্যের অন্যতম প্রধান সরবরাহকারী ইউরোমানি ইনস্টিটিউশনাল ইনভেস্টর পিএলসি’র একটি অংশ।
এর আগে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান ‘এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের শ্রেষ্ঠ কেন্দ্রীয় ব্যাংক গভর্নর ২০১৫’ পুরস্কার লাভ করেছেন। সেবার তাঁকে পুরস্কৃত করেছিল লন্ডনভিত্তিক ফিন্যানশিয়াল টাইমস মালিকানাধীন ম্যাগাজিন ‘দ্য ব্যাংকার’। সামষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার পাশাপাশি সামাজিক ও পরিবেশবান্ধব দায়িত্বশীল অর্থায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখার জন্য ‘দ্য ব্যাংকার’ তাঁকে এ অ্যাওয়ার্ড দেয়।
তারও আগে গত বছরের নভেম্বরে দারিদ্র্য কমিয়ে শান্তি প্রতিষ্ঠায় অবদান রাখায় ড. আতিউর ‘গুচি শান্তিপদক’-এ ভূষিত হন। এছাড়া তিনি ভারতের সম্মানজনক পুরস্কার ‘ইন্দিরা গান্ধী স্বর্ণপদক ২০১১’ লাভ করেন। ড. আতিউর ২০০৯ সালের ১ মে দশম গভর্নর হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংকে যোগদান করেন। গত বছর দ্বিতীয়বারের মতো তাঁর চাকরির মেয়াদ বাড়ানো হয়।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ