বিশেষ খবর

ভূমিকম্পে ফাটল আতঙ্কে হল ছাড়ল ইডেনের ছাত্রীরা

ক্যাম্পাস ডেস্ক কলেজ

রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজের একটি আবাসিক হলে ভূমিকম্পের কারণে ফাটল দেখা দিয়েছে। নিরাপত্তার কারণে সেখানে বসবাসরত ছাত্রীদের সাত দিনের জন্য হল ছাড়তে বলা হয়েছে। কলেজ কর্তৃপক্ষের নির্দেশ পাওয়ার পর ছাত্রীরা হল ছাড়তে শুরু করে। বিকেল ৪টার মধ্যে পুরো হল খালি করা হয়।
বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুননেসা মুজিব নামের এ হলটির নির্মাণকাজ শুরু হয়েছিল ২০০৭ সালে, কাজ শেষ হয়েছে ২০১৩ সালে। ১১ তলাবিশিষ্ট এ আবাসিক হলে এক হাজার ২০০ ছাত্রীর থাকার ব্যবস্থা আছে।
ইডেন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হোসনে আরা জানান, আবাসিক হলটির ২৯টি কক্ষে ফাটল দেখা দিয়েছে। নিরাপত্তার কারণে সাত দিনের জন্য ছাত্রীদের হল ছাড়তে বলা হয়েছে। এই ছাত্রাবাসের যেসব শিক্ষার্থীর পরীক্ষা রয়েছে, তাদের অন্য হলে থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রধান প্রকৌশলী ছাত্রাবাসটি পরীক্ষা শেষ করলে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে।
একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, আগে থেকেই হলে ফাটল ছিল, ভূমিকম্পের পর নতুন করে আরো ফাটল দেখা দিয়েছে।
এ বিষয়ে অধ্যক্ষ হোসনে আরা বলেন, আগে থেকেই কোনো নির্মাণ ত্রুটি ছিল কি না আমি তা বলতে পারব না। আমার আগে আরো দুজন অধ্যক্ষ দায়িত্ব পালন করেছেন। হল নির্মাণে ত্রুটি আছে কি না তাঁরাই তা ভালো বলতে পারবেন।
প্রসঙ্গত সম্প্রতি নেপালে ৭.৯ মাত্রার ভূমিকম্পে ভারত ও বাংলাদেশের বিশাল এলাকা কেঁপে ওঠে। এতে বাংলাদেশে অনেক ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়। তবে বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।
ইডেন কলেজের ক্ষতিগ্রস্ত হল পরিদর্শনে শিক্ষামন্ত্রী
ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ইডেন কলেজের ফজিলাতুননেসা মুজিব হলের ফাটল পরিদর্শন করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এ পরিদর্শনের সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী দেয়ান মোহাম্মদ হানজালা, ইডেন কলেজের অধ্যক্ষ হোসনে আরা প্রমুখ।
পরিদর্শনকালে মন্ত্রী হলের ১০ ও ১১ তলার একাধিক কক্ষ, করিডরের দেয়াল-মেঝে খুঁটিয়ে দেখেন এবং প্রকৌশলীদের মতামত নেন। প্রকৌশলীরা জানান, মূল কাঠামোতে ফাটল না থাকায় ভবনটি তেমন ঝুঁকিপূর্ণ নয়। শিক্ষামন্ত্রী এ সময় প্রধান প্রকৌশলীকে দেয়ালের ফাটলগুলোর গভীরতা, প্রকৌশলগত গুরুত্ব, পরবর্তী প্রভাবসহ আনুষঙ্গিক দিক খতিয়ে দেখে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দেন। হলের ছাত্রীরা এ সময় জরুরি ভিত্তিতে হলে ওঠার দাবি জানালে মন্ত্রী তাঁদের প্রতিবেদন পাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করার পরামর্শ দেন। শিক্ষামন্ত্রী একইসঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ভূমিকম্পের কারণে কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে কি না, সে-সংক্রান্ত আরো একটি প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ দেন।
উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক ভূমিকম্পে ইডেন কলেজের এক হাজার আসনবিশিষ্ট ফজিলাতুননেসা মুজিব হলের বিভিন্ন স্থানে ফাটল দেখা দেয়। ওই দিন রাতেই কলেজ কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ