বিশেষ খবর

স্কলারশিপে উচ্চশিক্ষা

ক্যাম্পাস ডেস্ক বৃত্তি

এশিয়ার ইউরোপ’ খ্যাত মালয়েশিয়ায় বর্তমানে বিশ্বের প্রায় ১৮০টি দেশ থেকে উচ্চশিক্ষার জন্য প্রায় এক লাখ চল্লিশ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছেন। সম্প্রতি বাংলাদেশ থেকেও অনেক শিক্ষার্থী মালয়েশিয়ায় যান। তবে কোনো দেশে উচ্চশিক্ষার জন্য যাওয়ার আগে অবশ্যই জেনে নিতে হবে সেই দেশের শিক্ষাব্যবস্থা কেমন, কলেজ অথবা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিউশন ফি কত, থাকা-খাওয়া ও যাতায়াত খরচ কেমন ইত্যাদি। মালয়েশিয়া পড়তে যাওয়ার আগে এ কয়েকটি বিষয় জেনে রাখা ভাল। শিক্ষার্থীদের জন্য সুখবর হলো, মালয়েশিয়ায় অবস্থিত ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি পরামর্শ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ‘নলেজ হাব’ ও ঢাকার ‘মেন্টরস্ স্টাডি এ্যাবরড’-এর যৌথ প্রচেষ্টায় মালয়েশিয়ার নির্বাচিত একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশের মেধাবী শিক্ষার্থীদের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার জন্য বৃত্তির সুযোগ করে দিচ্ছে। চায়নার বিখ্যাত জিয়ামেন ইউনিভার্সিটি প্রথমবারের মতো মালেশিয়ার মাটিতে তাদের ক্যাম্পাস স্থাপন করেছে। জিয়ামেন ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস সেলানগড়ের মধ্যে বন্দরকোটা ওয়ারিসানে অবস্থিত, যা কুয়ালালামপুরের কাছে। ক্যাম্পাসটি আধুনিক সব সুবিধাসহ ১৫০ একর জায়গা নিয়ে নির্মিত। জিয়ামেন চায়নার একটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। যা বর্তমানে চায়নাতে ৯ম, এশিয়াতে ৩৭তম এবং বিশ্ব ২৭৫তম স্থানে রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির ৮৮ শতাংশ ফ্যাকাল্টিই পিএচডি ডিগ্রিধারী। এখানে প্রকৌশল, মেডিসিন, সমাজবিজ্ঞান, ব্যবসায়, আইসিটি, মাল্টিমিডিয়াসহ বিভিন্ন প্রোগ্রামে পড়াশোনা করার সুযোগ রয়েছে। সম্প্রতি ‘জিয়ামেন ইউনিভার্সিটি’ বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য মেধাভিত্তিতে বিভিন্ন স্কলারশিপ ঘোষণা করেছে। মেধার ভিত্তিতে টিউশন ফি’র ওপর স্কলারশিপ প্রদান করা হবে।
ভাল ফলের মাধ্যমে স্কলারশিপ প্রতি বছর নবায়ন করার সুবিধা রয়েছে। স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে হলে এসএসসি এবং এইচএসসিতে ন্যূনতম জিপিএ ৪ অথবা ‘ও’ লেভেলে ন্যূনতম ৫টি বিষয়ে এ এবং ‘এ’ লেভেলে ন্যূনতম ৩টি বিষয়ে বি অথবা জিইডিতে শতকরা ৮০ ভাগ নম্বর থাকতে হবে। জিয়ামেন ইউনিভার্সিটির হেড অব রেজিওনাল স্টুডেন্ট রিক্রুটমেন্ট কর্মকর্তা টনি ঝেং সরাসরি শিক্ষার্থীদের স্কলারশিপের জন্য সাক্ষাতকার নেবেন। চাইলে আপনিও যোগাযোগ করতে পারেন এই নম্বরে : ০১৭১৩২৪৩৪২২, ০১৯৬৯০০৯০০০। এ সময় তিনি এবং ‘নলেজ হাব’-এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও আরিফ সাইদ ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী এবং বরিশালের বিভিন্ন জায়গায় ‘স্কলারশিপ সাক্ষাৎকার’ আয়োজন করবেন। সাক্ষাৎকারের জন্য শিক্ষার্থীকে সব একাডেমিক কাগজপত্র নিয়ে উপস্থিত থাকতে হবে। আসন্ন ‘স্কলারশিপ সাক্ষাৎকার’ সম্পর্কে মেন্টরসের সিনিয়র কনসালট্যান্ট প্রদীপ রায় জানান, জিয়ামেন ইউনিভার্সিটির শিক্ষাব্যবস্থা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় সব ধরনের তথ্য বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের কাছে উপস্থাপন করাকে আমরা সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছি।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ