ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের উদ্যোগে  হলের উপাসনালয় প্রাঙ্গণে.." /> জগন্নাথ হল স্বর্ণপদক পেলেন ঢাবি’র ৮জন শিক্ষার্থী
বিশেষ খবর

জগন্নাথ হল স্বর্ণপদক পেলেন ঢাবি’র ৮জন শিক্ষার্থী

ক্যাম্পাস ডেস্ক সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়
img

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের উদ্যোগে  হলের উপাসনালয় প্রাঙ্গণে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ‘জগন্নাথ হল স্বর্ণপদক’ ২০১৩ প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এবং প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. সহিদ আকতার হুসাইন ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ কামাল উদ্দীন বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন।
অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ হল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শ্রীকানুতোষ মজুমদার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. অসীম সরকার।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য পদকপ্রাপ্তদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, মেধাবী শিক্ষার্থীদের সম্মানার্থে এ কর্মসূচি অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের অনুপ্রেরণা যোগাবে। শিক্ষিত ও আলোকিত সমাজ বিনির্মাণে এ ধরনের অনুপ্রেরণামূলক অনুষ্ঠানের বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে, পদকপ্রাপ্তরা সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্যপরায়নতার দৃষ্টান্ত রাখবেন বলে উপাচার্য আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উপাচার্য মহান স্বাধীনতার এই মাসে এ ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় হল কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণের কথা, ২৫মার্চ রাতে প্রাচীনতম ও ঐতিহ্যবাহী এই জগন্নাথ হল এবং ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় পাকিস্তানি বাহিনী কর্তৃক আক্রান্ত হওয়ার কথা উল্লেখ করে লক্ষপ্রাণের আত্মাহুতির কথা স্মরণ করেন।
উপাচার্য দৃঢ়তার সাথে বলেন, মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী ও বর্তমান রাজনৈতিক কর্মকান্ডের নামে নাশকতাকারীদের বাংলাদেশ বিরোধী কর্মকান্ড এবং ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়কে অচল করার ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তকে নস্যাৎ করে জ্ঞান ও মেধার ভিত্তিতে শিক্ষার আলোয় আলোকিত হয়ে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ভাসিত হয়ে এগিয়ে নিতে হবে বাংলাদেশকে। তিনি বলেন, ষোল কোটি মানুষের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় প্রজন্ম বিধ্বংসী কর্মকান্ড থেকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবেই।
অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ ও ইনস্টিটিউটে ২০১৩ সালের অনার্স ও মাস্টার্স পরীক্ষায় জগন্নাথ হলের যে আটজন ছাত্র প্রথম স্থান অধিকার করেছেন তাঁদের এই ‘জগন্নাথ হল স্বর্ণপদক’ এবং সম্মানসূচক সনদ প্রদান করা হয়। পদকপ্রাপ্তরা হলেন- রাম প্রসাদ চক্রবর্ত্তী (অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগ), সৈকত চন্দ্র দে (ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগ), সুব্রত সাহা (মৃৎশিল্প বিভাগ), অমিত কুমার দে (উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগ), তীর্থ নন্দী (ফার্মেসী বিভাগ), দীপংকর দাস (উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগ), নির্মাণ সাহা (অর্থনীতি বিভাগ) এবং উন্মেষ রায় (বাংলা বিভাগ) ।
অনুষ্ঠানে জগন্নাথ হল পরিবারসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, পদকপ্রাপ্ত ছাত্রবৃন্দ ও তাঁদের অভিভাবক, জগন্নাথ হল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সম্মানিত সদস্যবৃন্দ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, ধর্মীয় সংগঠনের অতিথিবৃন্দ এবং সমাজের বিশিষ্ট গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ