বিশেষ খবর

সরকারিকরণ হচ্ছে আরো ২৩ কলেজ

ক্যাম্পাস ডেস্ক শিক্ষা সংবাদ
img

সরকারি কলেজ নেই এমন উপজেলাগুলোতে একটি করে কলেজ সরকারিকরণের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে দেশে আরো ২৩টি বেসরকারি কলেজ জাতীয়করণ করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে কলেজগুলোর তালিকা দিয়ে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ২৩টি নতুন বেসরকারি কলেজকে সরকারিকরণ সংক্রান্ত নির্দেশনা সম্প্রতি মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে (মাউশি) পাঠানো হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী, এখন মাউশি এসব কলেজ পরিদর্শন করে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন দেবে। পরে মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠানগুলো জাতীয়করণের আদেশ জারি করবে। ইতোমধ্যে এসব কলেজের শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বদলির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।
সরকারিকরণের জন্য তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলো হলো ঢাকার নবাবগঞ্জের দোহার-নবাবগঞ্জ কলেজ, মানিকগঞ্জের হরিরামপুরের বিচারপতি নূরুল ইসলাম মহাবিদ্যালয় ও দৌলতপুরের মতিলাল ডিগ্রি কলেজ, ফরিদপুরের সালথা কলেজ, শরীয়তপুরের জাজিরার বি কে নগর বঙ্গবন্ধু কলেজ, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ার বেগম ফজিলাতুননেসা মুজিব মহিলা মহাবিদ্যালয়, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া কলেজ, শেরপুরের ঝিনাইগাতীর আদর্শ মহাবিদ্যালয়, চট্টগ্রামের হাটহাজারী কলেজ, কুমিল্লার হোমনা ডিগ্রি কলেজ, সিলেটের বিশ্বনাথ কলেজ, রাজশাহীর তানোরের আব্দুল করিম সরকার কলেজ ও দুর্গাপুরের দাওকান্দি ডিগ্রি কলেজ, নওগাঁর মান্দার মমিন-শাহানা ডিগ্রি কলেজ, সিরাজগঞ্জের কামারখন্দের কাজী কোরাপ আলী মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজ, বগুড়ার নন্দীগ্রাম মহিলা ডিগ্রি কলেজ ও শিবগঞ্জ এম এইচ মহাবিদ্যালয়, রংপুরের তারাগঞ্জ ওয়াকফ এস্টেট কলেজ, দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট ডিগ্রি কলেজ ও চিরিরবন্দর ডিগ্রি কলেজ, খুলনার তেরখাদার নর্থ খুলনা কলেজ ও দীঘলিয়ার এম এ মজিদ ডিগ্রি কলেজ এবং কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা মহিলা কলেজ। জানা গেছে, নতুন এই ২৩টিসহ চলতি বছরে ২৮৪টি বেসরকারি কলেজ সরকারিকরণ হলো। এর আগে গত জুন মাসে ১৯৯ ও আগস্টে ৬৪টি কলেজ সরকারি করার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মতি দেন। সেগুলোর চূড়ান্ত আদেশ এখনো জারি হয়নি। দেশে বর্তমানে ৩৩৫টি সরকারি কলেজ রয়েছে। এখনো তিন শতাধিক উপজেলায় সরকারি কলেজ নেই।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ