বিশেষ খবর

রাজস্ব আদায়ে সহায়তা নেয়া হবে প্রার্থনাকেন্দ্রের -এনবিআর চেয়ারম্যান

ক্যাম্পাস ডেস্ক সংবাদ
img

চলতি অর্থবছরে রাজস্ব আদায়ে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হবেই- এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোঃ নজিবুর রহমান। তিনি বলেছেন, রাজস্ব প্রদানে মানুষকে উৎসাহিত করতে মসজিদ, মন্দির, গির্জাসহ বিভিন্ন প্রার্থনাকেন্দ্রের প্রধানদের প্রশিক্ষণসহ বেশ কিছু উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে এনবিআর।
সম্প্রতি সেগুনবাগিচায় এনবিআরের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির চেয়ারম্যান এ কথা বলেন। তিনি বলেন, অর্থবছরের শুরুতে যখন আমাদের (এনবিআরের) ওপর বিশাল রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য দেয়া হলো, তখন আমরা ঠিক করি, কিছু অভিনব উপায়ে রাজস্ব আদায়ের উদ্যোগ নিতে হবে। এর মধ্যে রাজস্ব সংলাপ একটি অন্যতম উপায়।
নজিবুর রহমান বলেন, এই সংলাপের মাধ্যমে আমরা জনসাধারণকে বোঝাতে চেষ্টা করব, কর বা মূসক দেয়া তাদের নাগরিক দায়িত্ব। যেমন, আমি ইতোমধ্যে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিবের সঙ্গে আলাপ করেছি। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে মসজিদ, মন্দির, প্যাগোডা ও গির্জার প্রধান যাঁরা, তাঁদের প্রশিক্ষণ দিয়ে তাঁদের মাধ্যমে জনসাধারণকে সচেতন করা হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে মসজিদের ইমামদের এই প্রশিক্ষণ দেয়া হবে জানিয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, যাতে ইমামরা রাজস্ব সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা পান; ইমামদের মাধ্যমে প্রত্যেক মসজিদে রাজস্ব সংলাপ করা হবে। নজিবুর রহমান জানান, সরকারের যত প্রশিক্ষণকেন্দ্র আছে সেখানে আমরা রাজস্ববিষয়ক একটি মডিউল যোগ করছি। যারা প্রশিক্ষণ নেবেন, তাঁদের রাজস্ব বিষয়ে ধারণা দেয়া হবে।
এনবিআর চেয়ারম্যান জানান, করদাতাদের সঙ্গে রাজস্ব বোর্ডের যোগাযোগ বাড়াতে প্রতিটি জেলায় রাজস্ব ভবন করা এবং উপজেলা অফিসগুলোকে আরো সক্রিয় করার উদ্যোগ রয়েছে। ব্যাংকের হিসাবধারীদের যাতে টিআইএন, ভ্যাট, বিআইএন নম্বর থাকে সে জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে বাংলাদেশ ব্যাংককে অনুরোধ করা হয়েছে। এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, চলতি অর্থবছরে এক লাখ ৭৬ হাজার ৩৭১ কোটি টাকার রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য রয়েছে এনবিআরের। এর মধ্যে পাঁচ মাসে ৫৪ হাজার ৪০৭ কোটি ৬৯ লাখ টাকা আদায় হয়েছে। নভেম্বর মাসে রাজস্ব আদায়ে ২৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে। এটা আমাদের সকলকে উৎসাহিত করছে।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ