বিশেষ খবর

মুনাফালোভী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হবে - শিক্ষামন্ত্রী

ক্যাম্পাস ডেস্ক সংবাদ
img

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এখনও শর্ত পূরণ করতে পারেনি। তারা কেবল মুনাফার লোভে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকবে। এসব মুনাফাখোর বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য কোনো সুখবর নেই। যারা শিক্ষাকে ব্যবসায় পরিণত করেছে এবং একাধিক ক্যাম্পাস পরিচালনা করছে, তাদেরকেও সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে। আইন না মানলে তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হবে।
সম্প্রতি আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় গ্রীন ইউনিভার্সিটির দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, কেবলমাত্র একটি শিক্ষিত জনগোষ্ঠীই পারে গণতন্ত্র ও জনগণের সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক অধিকার সংরক্ষণ করতে। এজন্য প্রয়োজন ছাত্র-ছাত্রীদের আধুনিক, মানসম্মত ও নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়া। তাই শিক্ষা যেনো কোনোভাবেই সার্টিফিকেটনির্ভর না হয়, তা অবশ্যই সব বিশ্ববিদ্যালয়কে মেনে চলতে হবে।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান বলেন, দেশের ৬০ ভাগ শিক্ষার্থী এখন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে। ফলে কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অব্যবস্থাপনার কারণে দেশে-বিদেশে আমাদের উচ্চশিক্ষার বদনাম হচ্ছে। এ অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয় কঠোর অবস্থানের ঘোষণা দিয়ে অ্যাকশন শুরু করেছে।
এছাড়াও এতে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন ও ভাইস চ্যান্সেলর ড. মোহাম্মদ গোলাম সামদানী ফকির, অধ্যাপক গোলাম আহমেদ ফারুকী, অধ্যাপক ফাইজুর রহমান প্রমুখ।
সমাবর্তনে ১৫শ’ ৩৬ জন শিক্ষার্থীকে সনদ দেয়া হয়। এর মধ্যে চারজন চ্যান্সেলর পদক ও ৭ জন ভাইস চ্যান্সেলর পদক পান।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ