বিশেষ খবর

স্থায়ী সনদ পেল ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি

ক্যাম্পাস ডেস্ক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শর্ত পূরণ করায় ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়কে স্থায়ী সনদ দিয়েছে সরকার। তবে যেসব বিশ্ববিদ্যালয় এখনও শর্ত পূরণ করতে পারেনি তাদের এক বছরের মধ্যে সব শর্ত পূরণ করতে হবে, ব্যর্থ হলে শিক্ষার্থী ভর্তি বন্ধসহ আইনানুগ কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
রাজধানীর আফতাবনগরে ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ক্যাম্পাসে এই সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে তিন শিক্ষার্থীকে স্বর্ণপদকসহ ১৩১১ শিক্ষার্থীকে সনদ প্রদান করা হয়। ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় এসব তথ্য।
অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উচিত উদ্বৃত্ত টাকা গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষায় বৃত্তি হিসেবে প্রদান করা।
সমাবর্তন বক্তা, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, সফলতা বলে কিছু নেই যদি ব্যর্থতা না থাকে। অনেক প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়ে তবেই সফলতা দেখা দেয়। তাই কর্মজীবনে হতাশ না হয়ে তাদেরকে আশাবাদী হতে বলেন তিনি। একই সঙ্গে অন্যের জন্য কিছু করতে পারার আনন্দ উপভোগের জন্য গ্রাজুয়েটদের প্রতি আহ্বান জানান ড. জাফর ইকবাল।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্ণর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন বলেন, সম্প্রতি সমাজে যে অসহিষ্ণুতা বিরাজ করছে তা বেদনাদায়ক। ইস্ট ওয়েস্টের গ্রাজুয়েটরা সততা, দক্ষতা ও দেশপ্রেমের মহামন্ত্রে উদ্বুদ্ধ হয়ে অসাম্প্রদায়িক ও গণতান্ত্রিক সমাজব্যবস্থা গড়ে তুলতে ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম এম শহিদুল হাসান শিক্ষাজীবনে অর্জিত জ্ঞান মাতৃভূমির আর্থসামাজিক উন্নয়নে প্রয়োগ করার জন্য গ্রাজুয়েটদের প্রতি আহ্বান জানান।
সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যগণ, বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারপারসনগণ, শিক্ষকবৃন্দ, কর্মকর্তা-কর্মচারী, গ্রাজুয়েট ও তাদের অভিভাবকরা অংশ নেন। শিক্ষাজীবনের শেষে যথাসময়ে সনদ হাতে পাওয়ায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন শিক্ষার্থীরা।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ