বিশেষ খবর

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যা কিছু করা হবে তা যেন অনুসরণযোগ্য হয় -পরিকল্পনা কমিশন সচিব

ক্যাম্পাস ডেস্ক সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

পরিকল্পনা কমিশনের আর্থ-সামাজিক অবকাঠামো বিভাগের সদস্য (সচিব) আবদুল মান্নান ২৩ সেপ্টেম্বর খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। এসময় উপাচার্য খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে সফরের জন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানান এবং একনেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৮৮ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা উপস্থাপন এবং অনুমোদনের ব্যাপারে সহযোগিতার জন্য তাঁকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান।
উপাচার্য স্মারক হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি ক্রেস্ট উপহার দেন। পরে কমিশনের সদস্য (সচিব) বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল, নির্মাণাধীন নতুন ছাত্রী হল, মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্য অদম্য বাংলাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন অবকাঠামো ঘুরে দেখেন। এ সময় তিনি একাডেমিক বিষয়ে খোঁজ-খবর নেন এবং বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যা কিছু করা হবে তা যেন অনুসরণযোগ্য হয়, আদর্শস্থানীয় হয়। শিক্ষার্থীরা এখান থেকে যেন এমন কিছু ধারণ করে নিয়ে যায় যা মানব সমাজের কল্যাণে নিয়োজিত করতে পারে।
তিনি আরও বলেন, প্রকৃতঅর্থে শিক্ষা একটি জীবন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কেবলমাত্র সনদভিত্তিক না হয়ে তা প্রকৃত জ্ঞানচর্চার স্থান হওয়া উচিত। তার জন্য শিক্ষকদের ভূমিকা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। শিক্ষকবৃন্দ চাকরিজীবী হলে তাঁর শিক্ষার্থীরা প্রকৃত শিক্ষা লাভ করতে পারবে না। ফলে সমাজে প্রত্যাশিত পরিবর্তন সাধিত হবে না বা অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জিত হবে না। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ছাত্রের তথ্য সংরক্ষণে ডাটা সেন্টার স্থাপনে গুরুত্বারোপ করেন।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ