বিশেষ খবর

‘ও’ লেভেল ‘এ’ লেভেল পরীক্ষা নিয়ে উদ্বেগ

ক্যাম্পাস ডেস্ক শিক্ষা সংবাদ
img

চলমান হরতাল-অবরোধের কারণে আসন্ন মে-জুন মাসে ইংরেজি মাধ্যমের ২০১৫ সেশনের এ লেভেল এবং ও লেভেল পরীক্ষা কীভাবে হবে তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন অভিভাবকরা। সন্তানদের পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ নির্বিঘœ করার দাবিতে ২০ মার্চ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন তারা। সরকার ও বিরোধী রাজনৈতিক দলের সহযোগিতা কামনা করে জাতীয় প্রেস ক্লাবের হলরুমে সংবাদ সম্মেলনও করেছেন অভিভাবকরা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন অভিভাবক ডাঃ আতিয়া আহমেদ। আদরী শাহিদ, সুনীল সাহা, সোহেলা কবীরসহ শ’খানেক অভিভাবক এ সময় উপস্থিত ছিলেন। লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, EDEXCEL, IGCSE & A LEVEL এবং CAMBRIDGE, O LEVEL & A LEVEL পরীক্ষাগুলো ঢাকাসহ বেশ কয়েকটি বড় শহরে বছরে দু’বার অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। আন্তর্জাতিক শিক্ষা বোর্ড দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এ পরীক্ষাগুলো পৃথিবীর বহু দেশে একই সময়ে অনুষ্ঠিত হয়। ফলে পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন সম্ভব নয়। হরতাল-অবরোধে শুক্র ও শনিবার এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়ে গেলেও ইংরেজি মাধ্যমে তা সম্ভব হবে না।
অভিভাবকরা জানান, আগে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ক্ষেত্রে মধ্যরাতে পরীক্ষা নেয়ার পন্থা ছিল; কিন্তু বর্তমানে লাগাতার হরতালের কারণে সামনের পরীক্ষা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় যদি আন্তর্জাতিক শিক্ষা বোর্ডগুলো এ সেশনের পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়, তা হলে পরীক্ষার্থীদের ছয় মাস থেকে এক বছর পিছিয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দেবে।
মানববন্ধনে একজন অভিভাবক বলেন, মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো তাদের সঞ্চয় খরচ করে সন্তানদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে চাচ্ছে। কিন্তু এভাবে রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে তাদের সন্তানের ভবিষ্যৎ অন্ধকার। তাদের বিপুল আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে। কারণ একটি পরীক্ষা না দিতে পারলে পরের বার প্রতি কোর্সে বিশাল অঙ্কের অর্থ গুণতে হয়।
আরেকজন অভিভাবক বলেন, ১০-১২ বছর পরিশ্রমের পরে এখন ফল তোলার সময় এসেছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে ফল নিয়ে তারা উদ্বিগ্ন। পরীক্ষা চলাকালে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি কর্মসূচি প্রদান স্থগিত রাখার আহ্বান জানান তিনি।
মা নার্গিস নাহারের সঙ্গে মানববন্ধনে হাজির হয়েছিল উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের ও-লেভেল পরীক্ষার্থী নাজমুস সাকিব নিলয়। তোমার উদ্বেগটা কোথায়- এমন প্রশ্নের জবাবে নিলয় জানায়, কোনো কারণে পরীক্ষা মিস হলে দ্বিতীয়বার পরীক্ষা দিয়ে অর্জিত সনদের মান কম থাকে; তা ছাড়া আর্থিক ক্ষতি তো আছেই।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ