বিশেষ খবর

দুর্নীতি কমাতে আগামী বছর থেকে অনলাইনে লেনদেন –অর্থমন্ত্রী

ক্যাম্পাস ডেস্ক শিক্ষা সংবাদ
img

দুর্নীতি কমাতে আগামী বছর থেকে সবক্ষেত্রে অনলাইনে অর্থ লেনদেন ও ই-টেন্ডার প্রক্রিয়া চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) প্রতিষ্ঠা এবং বিভিন্ন ধরনের আইন-কানুন করেও সরকার দুর্নীতি দমনে খুব একটা এগোতে পারেনি।
সম্প্রতি রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ের সুরমা হলরুমে ‘বৈষম্য ও দারিদ্র্য নিরসনে বাজেট ও অন্যান্য নীতি-কাঠামোর ভূমিকা’ শীর্ষক জাতীয় সংলাপে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এসব মন্তব্য করেন। সর্বদলীয় সংসদীয় গ্রুপ (এপিপিজি) এ সংলাপের আয়োজন করে। সাবেক মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি এবং মানবাধিকার সম্পর্কিত সর্বদলীয় সংসদীয় গ্রুপের চেয়ারপার্সন ডাঃ দীপু মনির সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় চীফ হুইপ ফখরুল ইমামসহ সরকারদলীয় এমপি ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) গবেষণা পরিচালক বিনায়ক সেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সবচেয়ে কার্যকর ব্যবস্থা হতে পারে অনলাইনে অর্থ লেনদেন ও টেন্ডার প্রক্রিয়া। সরকারের সব ক্ষেত্রে এ ব্যবস্থা চালু করা হলে দুর্নীতি কমানো সম্ভব। তিনি সরকারের সব বিভাগকে যার যার জায়গা থেকে যতটা সম্ভব কাজের ক্ষেত্রে অনলাইন পদ্ধতি চালু করার আহ্বান জানান।
অর্থমন্ত্রী নিজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বলেন, ইতিপূর্বে তিনি সিলেটের একটি কলেজের সভাপতি ছিলেন। ওই কলেজে আগে যেখানে ভর্তি কার্যক্রম থেকে আয় হতো আট লাখ টাকা, সেখানে যখন অনলাইন পদ্ধতি ভর্তি চালু করা হলো, সেই আয় বেড়ে হলো ৮৩ লাখ টাকা। আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, অনলাইনে লেনদেন হলে চুরি ঠেকানো সম্ভব, চোর ধরা যায় এবং অর্থ যার কাছে যাওয়ার কথা তার কাছেই যায়। ফলে সরকার পরিচালনায় বাজেটের অপচয় হয় না। শিক্ষাব্যবস্থা সম্পর্কে মুহিত বলেন, আমাদের প্রাইমারি ও উচ্চশিক্ষার পদ্ধতি ভাল। কিন্তু মাধ্যমিক শিক্ষাব্যবস্থা ভাল নয় বলে তিনি মনে করেন। এ নিয়ে তিনি শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেছেন বলে জানান অর্থমন্ত্রী।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ