বিশেষ খবর

ভারতের পারুল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের ৫০% পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে

ক্যাম্পাস ডেস্ক শিক্ষা সংবাদ

বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পারুল ইউনিভার্সিটি টিউশন ফি’র উপর ৫০% পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে। সম্প্রতি ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ছাড়ের ঘোষণা দেয় ইউনিভার্সিটির একটি প্রতিনিধি দল।
ইউনিভার্সিটির ইন্টারন্যাশনাল এডমিশন অফিসার জেমস মার্টিন ও ভানডিট আনজারিয়া সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। তারা জানান, ২০ একর জমিতে স্থাপিত নিজস্ব ক্যাম্পাসের পারুল ইউনিভার্সিটিতে ২০টি ভিন্ন ভিন্ন অনুষদে ২৫ হাজার ছাত্র-ছাত্রীর পাশাপাশি ৩০টি দেশের তিন শতাধিক আন্তর্জাতিক ছাত্র-ছাত্রী পড়াশুনা করছে। ২০০২ সালে স্থাপিত গুজরাটের ভাদোদরা ক্যাম্পাসে আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা নিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং, ম্যানেজমেন্ট, মেডিসিন, ফার্মাসি, কম্পিউটার এপ্লিকেশনসহ কয়েকটি অনুষদে ছাত্র-ছাত্রীদের আধুনিক প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে নিজেদের গড়ে তোলার লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়টি কাজ করে চলছে। ক্যাম্পাসে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সব ধরনের আধুনিক সুযোগ-সুবিধা যেমন ফ্রি ওয়াই ফাই, বিশেষায়িত হাসপাতাল, আন্তর্জাতিক মানের ফিটনেস সেন্টার, সরকারি ব্যাংক, এটিএম বুথ, ক্যান্টিন, নিজস্ব পরিবহন, হোস্টেল, সুইমিং পুল ও অডিটোরিয়াম রয়েছে।
তারা জানান, পারুল আরোগ্য সেবা মন্ডল নামের একটি সরকারি নিবন্ধিত ট্রাস্টের পরিচালনায় পারুল ইউনিভার্সিটি ২০ বছরের অধিক সময় ধরে ভারতে আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা নিশ্চিত করে চলছে। এটি ভারতে স্থাপত্যের দিক থেকে এ গ্রেড ক্যাটাগোরি মানের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সাম্প্রতিক সময়ে পারুল ইউনিভার্সিটি ভারতের আইপিই’র র‌্যাংকিং-এ ৭ম স্থানে রয়েছে। এছাড়াও পারুল সেবাশ্রম হাসপাতাল মেডিকেল ট্যুরিজম চালু করেছে। তাদের হাসপাতালে বিশ্বমানের চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।


আরো সংবাদ

শিশু ক্যাম্পাস

বিশেষ সংখ্যা

img img img

আর্কাইভ